চেলসি কী পারবে ম্যানচেস্টার সিটিকে হারাতে?

বর্তমানে চেলসি লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে প্রিমিয়ার লীগে সেরা চারে টিকে থাকতে।এফ এ কাপের ফাইনালে লেস্টারসিটির কাছে না হারলে সরাসরি চ্যাম্পিয়নস লীগের পরবর্তী আসরে জায়গা করে নিতে পারতো দলটি।প্রিমিয়ার লীগে সেরা চারে থাকার জন্য চেলসি,লেস্টার সিটি,লিভারপুলের মধ্যে তুমুল প্রতিযোগিতা চলছে।

অন্যদিকে লীগে এক নম্বর অবস্থানে রয়েছে ম্যানচেষ্টার সিটি ।এখনো পর্যন্ত ৮৩ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে।ইউ সি এল এর অল ইংলিশ ফাইনাল ম্যাচে কে জিতবে তা অনুমান করা খুবই কঠিন। কেননা উভয় দলেই রয়েছে উদীয়মান তরুন ফুটবল প্লেয়ার। টমাস টুখেল চেলসির দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই চেলসি দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছে।

Advertisements

টুখেল এর অধীনে টিমো ওয়ের্নার, কাই হাভের্থ্স, পুলিসিচ, মাউন্ট রয়েছে আগুনে ফর্মে। মাঝ মাঠে কান্তে ভীষণ ভালো খেলছেন। সারা মাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন। সাথে রয়েছে জর্জিনহো,কোভাচিচের মত প্লেয়াররা।

রুডিগার,জোউমা,আজপিলিকুয়েতা,আলোনসো,চিলওয়েলরা রয়েছে ডিফেন্সে। কাউন্টার এ্যটাক এ ওয়ের্নার, হাভেরত্স, জিয়েখরা দ্রুতগতির প্লেয়ার হওয়ায় সিটি ডিফেন্সকে ভালো কিছু করে দেখাতে হবে। ওয়ের্নার গোল মিস করলেও অপনেন্ট ডিফেন্সকে গতি দিয়ে ভালোই ভোগাচ্ছেন। অন্যদিকে পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা ভালোমতো ছক কষেই মাঠে নামবেন।

Related Post

আক্রমণভাগে মাহরেজ,জেসুস, স্টারলিংরা প্রস্তুত থাকবেন। আগুয়েরো মূল একাদশে থাকবেন কিনা সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না।মাঝ মাঠে ফোডেন,ডি ব্রুইনা,গুণ্ডোগান রয়েছেন। ডিফেন্স এর মূল দায়িত্বে থা_এরকবেন পর্তুগিজ ডিফেন্ডার রুবেন ডিয়াস,যিনি রীতিমতো সেমি ফাইনালে পিএসজির ফরোয়ার্ডদের রুখে দিয়েছিলেন।

সাথে থাকবেন স্টোন্স,ওয়াকার, জিনচেনকোরা। গার্দিওলার কৌশল নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নেই। বরাবরের মতো প্রস্তুত থাকবেন তার কৌশল দিয়ে অপনেন্ট কে রুখে দিতে। একদিকে কোচ গার্দিওলা বনাম টুখেল,অন্যদিকে সেন্টার ফরোয়ার্ড পজিশনে জেসুস বনাম ওয়ের্নার, মাঝমাঠে ডিব্রুইনা বনাম কান্তে,এ্যাটাকিং মিডের হাভের্ত্স বনাম রাইট উই্নগার ফরোয়ার্ড মাহরেজ।

ফুটবলপ্রেমীরা অপেক্ষা করছেন দুর্দান্ত একটি ম্যাচের জন্য, যেটি অনুষ্ঠিত হবে পোর্তোর স্টেডিও ডি ড্রাগাও স্টেডিয়ামে, শনিবার ২৯ শে মে, রাত একটায়। উভয় দল থেকে ৬০০০ করে মোট 12 হাজার দর্শক মাঠে প্রবেশ করতে পারবেন।

আঁধার আলো/শহীদ আফ্রিদি সবুজ